ভ্রমণকে আনন্দায়ক ও নিরাপদ করতে দরকারি টিপস
লাইফ স্টাইল

ভ্রমণকে আনন্দায়ক ও নিরাপদ করতে দরকারি টিপস

যখনই আপনি আপনার পরিবার,বন্ধু বা একা দূরে বা দেশের বাহিরে ঘুরতে যাবেন,তখন অবশ্যই আগে পরিকল্পনা  করে নিবেন।আপনার ভ্রমণ যেন নিরাপদ ও আনন্দময় হয় তার জন্য আমরা কিছু প্রয়োজনীয় টিপস দিচ্ছি আশাকরি আপনার ভমণ পরিকল্পনায় সাহায্য করবে।

০১-লিস্ট বা তালিকা তৈরী করা-

ঘুরতে যাওয়ার কমপক্ষে সাতদিন পূর্বেই সাথে কি কি নিবেন তার একটা তালিকা তৈরী করে ফেলুন।যাতে করে কোনো কিছু ভুলে রেখে যেতে না হয়।অবশ্যই সময় নিয়ে করবেন।

০২-প্রয়োজনীয় ডকুমেন্ট-

যে কোনো সময় বিপদ আসতে পারে,তাই আগে থেকে সতর্ক থাকা আমাদের উচিত।সকল ডকুমেন্ট যেমন –পাসপোট,টিকিটি, আইডি কাড সহ গুরুত্বপূর্ণ কাগজের ফটেকপি সাথে রাখুন। তবে অবশ্যই মূলকপি ও ফটোকপি আলাদা ব্যাগে রাখুন।আর গুগল ড্রাইভ ও ইমেইলে রাখতে ভুলবেন না।প্রয়োজন মনের করলে বাসায় এক সেট ফটোকাপি রেখে যেতে পারেন।

০৩-কখন কি করবেন

কখন, কবে,কোথায় যাবেন-থাকার বিষয় আগেই টিক করে রাখবেন ।কখন কি কাপড় পরবেন তারও ঠিক করে রাখবেন।যেখানে যাবেন তার আবহাওয়া কেমন তা জেনে নিবেন।আর এসবের উপর ভিত্তি করেই কি কি জামা নিবেন তা ঠিক করবেন।

০৪-সতর্ক হউন-

সব টাকা পয়সা এক সাথে না রেখে আলাদা আলাদা রাখুন,ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করার চেস্টা করুন।।কিছু খুচরা টকা সাথে রাখুন।হোটেলের ঠিকানা,রুম নাম্বার সাথে মোবাইলে সেব করে রাখুন।

 

সাতাঁর কাটার উপকারিতা

 

০৫-আপনার অবস্থান বাসায় জানিয়ে রাখুন।–

আপনি কোথায় আছেন,কখন কোথায় যাবেন,তার অবস্থান বাসায় জানিয়ে রাখবেন।

০৬-প্রয়োজনীয় জিনিসপ্রত্র-

ব্রাশ,টুথপেস্ট,শেম্পু,সাবান,কিছু ঔষধ যেমন-প্যারাসিট্যামল,সদি-কাশির,মাথা ব্যাথার,গ্যাস্টিক ঔষধ, ব্যান্ডেজ,হ্যান্ড ওয়াশ সাথে রাখুন।

০৭-একটু ধৈর্যশীল হওয়া-

পরিকল্পনা অনুযায়ী সকল কিছু নাও হতে পারে। বাস,ট্রেন,প্লেন এর সময়-সূচির পরিবর্তন হতে পারে ।এই সকল কিছু মাথায় রেখে পরিকল্পনা করুণ।তাই সকল ক্ষেত্রে একটু ধৈর্যশীল হওয়ার চেস্টা করুন।

০৭-অতিরিক্ত মোবাইল/ব্যাটারি/ক্যামেরা-

ঘুরতে যাওয়ার সময় অবশ্যই অতিরিক্ত মোবাইল ,ব্যাটারি সাথে রাখুন। যাতে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন না হয়। আর সাথে ক্যামেরা রাখুন সুন্দর মুহুর্ত গুলো ফ্রেমে বন্দি করে রাখতে।

৮-সংগ্রহ করা-

যেখানেই যান না কেন কিছু জিনিষ সংগ্রহ করুন যেমন- ডাক টিকিট,ঘড়ি,কয়েন ইত্যাদি।এতে করে আপনার একটি নিজিস্ব সংগ্রহশালা তৈরী হবে।

আজকে এই পর্য়ন্ত আগামীতে  নতুন কিছু টিপস নিয়ে হাজির হবো আপনাদের সে পর্যন্ত ভালো থাকুন।

Similar Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *